বুধবার,২৫শে এপ্রিল, ২০১৮ ইং,১২ই বৈশাখ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সময়: সন্ধ্যা ৬:১৪
রাষ্ট্রপতি টুঙ্গিপাড়া যাবেন আগামীকাল ফাহিমকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে বিশ্ববাজারে এভেঞ্জার্সের সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে স্বপ্নজাল পার্বতীপুরে বোরো ধানের বাম্পার ফলনের সম্পাবনা ॥ কৃষকের মুখে হাসি ইন্দোনেশিয়ায় তেলকূপে অগ্নিকাণ্ড, ১০ জনের মৃত্যু টরেন্টোতে পথচারীদের ওপর গাড়ি তুলে দেয়ার ঘটনায় নিহত ১০ কেসিসি নির্বাচনে মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ

কাজিরাঙা জঙ্গলের অর্ধেকই পানির নিচে, বিপন্ন পশুরা

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: উত্তর-পূর্ব ভারতের আসাম রাজ্যের বন্যা পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি হলেও প্রাণহানির ঘটনা বাড়ছে। মানুষের পাশাপাশি বন্য পশুরাও মারা পড়ছে। ৪৩০ বর্গকিলোমিটার আয়তনের বিখ্যাত কাজিরাঙা জাতীয় উদ্যানের ৫২ শতাংশ এলাকা এখনো পানির নিচে।

সরকারি হিসাবে, এখন পর্যন্ত আসামে বন্যাজনিত কারণে ৫৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। দুই দিন ধরে ব্রহ্মপুত্রসহ প্রধান প্রধান নদীগুলোর পানি কমতে শুরু করলেও পরিস্থিতির উন্নতি হয়নি। রাজ্যের ৩৩টি জেলার মধ্যে ২৪টি জেলাই বন্যাকবলিত।

কাজিরাঙা জঙ্গলের অন্তত ৭০টি জন্তু বন্যার শিকার হয়েছে। বন দপ্তরের কর্মকর্তাদের তথ্য অনুযায়ী, তিনটি গন্ডারশাবক, একটি চিতার বাচ্চা, একটি বুনো মোষসহ বেশ কিছুসংখ্যক হরিণ বন্যায় ভেসে গেছে।

বন্যার কারণে পরিস্থিতি এলোমেলো হয়ে পড়ায় কাজিরাঙায় চোরা শিকারিরা সক্রিয় হয়ে পড়েছে। চোরা শিকার রুখতে এ জাতীয় উদ্যানে ৯৩টি নজরদারি ক্যাম্প খোলা হয়েছিল। বন্যার কারণে সেসব ক্যাম্পের অধিকাংশই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

সরকারি সূত্রে জানানো হয়েছে, রাজ্যের ২৪ জেলার ১ হাজার ৭৯৫টি গ্রামের প্রায় ১২ লাখ মানুষ বন্যাকবলিত হয়ে পড়েছে। ৬৬ হাজার ৫১৬ হেক্টর কৃষিজমি এখনো পানির নিচে। ১২৯টি ত্রাণশিবিরে ২৫ হাজারেরও বেশি মানুষ আশ্রয় নিয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ