সোমবার,১৮ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ইং,৬ই ফাল্গুন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সময়: সকাল ১০:২০
“জলঢাকায় পুনরায় ভাইস চেয়ারম্যানের জন্য গনসংযোগে রিভা আমজাদ” ডোমারে উপজেলা নির্বাচনে মুক্তিযোদ্ধা নুরননবীর পক্ষে গণসংযোগে সাবেক এমপি ড. হামিদা বানু শোভা। নাটোরে অস্ত্রসহ দুই যুবক আটক উৎসবমূখর পরিবেশে শৈলকুপা প্রেসকাবের নির্বাচন সম্পন্ন লিটন সভাপতি ও শিহাব সম্পাদক নির্বাচিত সহযোগিতা করলে সীমান্তে মাদক চোরাচালান, নারী-শিশুপাচার ও সীমান্ত হত্যাবন্ধ হবে॥ -লে: কর্ণেল এসএম রেজাউর রহমান(পিএসসি) জলবায়ুর বিরূপ প্রভাব মোকাবেলায় ‘সদিচ্ছা’ প্রদর্শনের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর হিলিতে সাংবাদিকদের সাথে উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী হারুনের মতবিনিময়

কাঁদলেন অমৃতা

3 months ago , বিভাগ : বিনোদন,

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক:  মায়ের সঙ্গে থাকেন। তাই মায়ের সঙ্গেই জীবনের যাবতীয় আলোচনা। নব্বইয়ের দশকের ডাকসাইটে অভিনেত্রী হওয়ায় অভিনয় নিয়ে তাই মা-ই বেশিরভাগ পরামর্শ দিয়ে থাকেন। অভিনয় জগতে আসার আগে থেকেই মা অমৃতা সিং-এর সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক নিয়ে এমন অনেক কথা প্রকাশ্যে আনতে শুরু করেন সাইফ-অমৃতা-কন্যা সারা। ‘কেদারনাথ’-এ অভিষেক হবার আগে সেই একই কথা আবারও নতুন করে জানালেন সারা।

তিনি বলেন, অমৃতা সিং অভিনেত্রী হওয়ায় ‘কেদারনাথ’-এর স্ক্রিপ্ট তাঁর সামনেই পড়ে শোনানো হয়েছিল। যেখানে কেদারনাথের এক পুরোহিত পরিবারের মেয়ে মুক্কুর সঙ্গে সম্পর্কে জড়ান ভিনধর্মী মনসুর। মুক্কু এবং মনসুরের সেই সম্পর্ক কিছুতেই মেনে নিতে পারেনি সমাজ। শেষ পর্যন্ত মুক্কু এবং মনসুরের কী পরিণতি হল, তা শুনেই নাকি কেঁদে ফেলেছিলেন অমৃতা সিং। বলার সময় তিনিও আবেগপ্লুত হয়ে যান।

প্রসঙ্গত, সাইফ আলি খানের চেয়ে ১৫ বছরের বড় হয়েও, এক সময় তাঁর সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধেন অমৃতা সিং। সাইফ-অমৃতার বিয়ের সিদ্ধান্ত মেনে নেয়নি পতৌদি পরিবার। কিন্তু, পরিবারের বিরুদ্ধে গিয়েই সেদিন একসঙ্গে থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন সাইফ আলি খান এবং অমৃতা সিং। কিন্তু, সেই সম্পর্ক স্থায়ী হয়নি।

সারা এবং ইব্রাহিমের জন্মের পর শেষ পর্যন্ত সাইফের সঙ্গে সমস্ত সম্পর্কের পাট চুকিয়ে দিয়ে বেরিয়ে আসেন অমৃতা। ‘কেদারনাথ’-এর গল্প শুনতে গিয়ে কি সেই কথাই মনে পড়ল অমৃতার? সে বিষয়ে অবশ্য কিছু জানা যায়নি।সূত্র: কালের কন্ঠ

আপনার মতামত লিখুন

বিনোদন বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ