বৃহস্পতিবার-১৮ই এপ্রিল, ২০১৯ ইং-৫ই বৈশাখ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ১১:০৫
কাল শিক্ষক নিবন্ধনের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা ঢাকায় পৌঁছেছেন ফেরদৌস রমজানে পণ্যের দাম বাড়বে না: বাণিজ্যমন্ত্রী পার্বতীপুরে স্কুল ফিডিং কার্যক্রম পরির্শনে মন্ত্রী পরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব নারীর প্রতি সহিংসতা রোধে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অভিযোগ বক্স রাখার সুপারিশ তাইওয়ানে শক্তিশালী ভূমিকম্প নুসরাত হত্যাকারীদের শাস্তি দাবিতে গাইবান্ধায় মৌন প্রতিবাদ

কলাপাড়ায় ৩৬ ঘন্টা পর রামনাবাদ নদীতে নিখোঁজ দুই শ্রমিকের মৃতদেহ উদ্ধার,


কলাপাড়া(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি।।
পটুয়াখালীর কলাপাড়ার দেবপুর গ্রাম সংলগ্ন রামনাবাদ নদীতে বালুবাহী বাল্কহেডের ধাক্কায় তীরে নোঙর করে রাখা ৭ শ্রমিক নিয়ে ট্রলার ডুবিতে নিখোঁজ দুই শ্রমিকের মৃতদেহ ৩৬ ঘন্টা পর উদ্ধার হয়েছে। রোববার সকাল সাড়ে নয়টায় ডুবে যাওয়া ট্রলারের ইঞ্জিন রুম থেকে সাইফুল ইসলাম (৩২) ও নুর ইসলামের (৩৫) মৃতদেহ উদ্ধার করে স্থানীয় ডুবুরীরা। তবে ডুবে যাওয়া ট্রলারটি উদ্ধার করা যায়নি। পুলিশ দুই শ্রমিকের লাশের ময়নাতদন্তের জন্য পটুয়াখালী মর্গে প্রেরণ করেছে। তাদের বাড়ি কলাপাড়ার নীলগঞ্জ ইউনিয়নের বাইনতলা গ্রামে।
কলাপাড়া থানার ওসি মনিরুল ইসলাম জানান, ট্রলার ডুবির ঘটনায় রোববার ৭ জনের নামে একটি মামলা হয়েছে। পুলিশ এ ঘটনায় বাল্কহেডের তিন কর্মচারী নুরুজ্জামান, আফজাল ও এনামুলকে গ্রেফতার করেছে। জব্দ করেছে বাল্কহেডটি।
এদিকে লাশ উদ্ধারের খবর শুনে হাজার হাজার মানুষ রামনাবাদ নদী তীরে ভীড় করে। এ সময় নিহতদের স্বজনদের আর্তনাদে এক হৃদয় বিদারক পরিবেশের সৃষ্টি হয়। সবার মধ্যে ক্ষোভ অনিয়ন্ত্রিতভাবে রামনাবাদ নদীতে বাল্কহেডগুলো চলাচল করায় এ দূর্ঘটনা ঘটেছে।
স্থানীয়দের অভিযোগ,তাপ বিদ্যুত কেন্দ্রে বালু ব্যবসাকে কেন্দ্র করে বাল্কহেডের মালিক ও প্রভাবশালীদের প্রতিযোগীতার কারনে তীরে নোঙর করে রাখা ট্রলারটিকে নদীতে ডুবিয়ে দিয়ে বাল্কহেডটি চলে যায়। যে বাল্কহেড আগে গিয়ে বালু আপলোড ও আনলোড করবে এমন সিরিয়ালের প্রতিযোগীতার কারণে ট্রলারে ঘুমিয়ে থাকা দুই শ্রমিকের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। তারা এ ঘটনায় দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার দাবী করেণ। একই দাবী করেণ নিহত সাইফুলের ভাই মো. আবুল বাসার ও নুর ইসলামের ভাই নিজাম হাওলাদার।
উল্লেখ্য,গত শুক্রবার (৮ ফেব্রুয়ারি) রাত সাড়ে দশটায় রামনাবাদ নদীতে বাল্কহেডের ধাক্কায় ৭ শ্রমিক নিয়ে ১৫ হাজার ইটবোঝাই ট্রলারটি ডুবে যায়। এ সময়ে ট্রলারে থাকা পাঁচ শ্রমিক স্থানীয় জেলেদের সহায়তায় উদ্ধার হলেও নিখোঁজ থাকে ওই দুই শ্রমিক। ট্রলারটি কলাপাড়া থেকে ইট নিয়ে গলাচিপা যাওয়ার পথে এ দূর্ঘটনা ঘটেছে বলে ট্রলার মালিক নিজাম শরীফ জানায়। এ ঘটনায় শনিবার বরিশাল থেকে ফায়ার সার্ভিসের একদল ডুবুরী দিনভর চেষ্টা করে ডুবে যাওয়া ট্রলারটি সনাক্ত করতে পারলেও ট্রলারের মধ্য থেকে ওই দুই শ্রমিককে উদ্ধার করতে পারেনি।

আপনার মতামত লিখুন

ঢাকা,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ