বৃহস্পতিবার,২১শে জুন, ২০১৮ ইং,৭ই আষাঢ়, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ১১:৪২
জাতীয় ফলদ বৃক্ষ রোপণ পক্ষ ও ফল প্রদর্শনী শুরু হচ্ছে কাল সরকার সিনেমা হল ডিজিটালাইজ করার প্রকল্প গ্রহণ করেছে পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয়ের নাম পরিবর্তন একনেক সভায় ১৫টি প্রকল্পের অনুমোদন কলকাতার গণমাধ্যমে নেই শাকিব সৈয়দপুরে আইকন কোচিং সেন্টারের পরিচালক মিলনের ইন্তেকাল নাটোরে স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীসহ দুজনের মৃত্যুদন্ড

‘ওজোনস্তর রক্ষায় বাংলাদেশের সাফল্য বিশ্বব্যাপী প্রশংসিত হয়েছে’

মুক্তিনিউজ24.কম ডেস্ক: ওজোনস্তর রক্ষায় বাংলাদেশের সাফল্য বিশ্বব্যাপী প্রশংসিত হয়েছে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বাংলাদেশ ২০১০ সালের মধ্যেই সিএফসিসহ উল্লেখযোগ্য ওজোন ক্ষয়কারী দ্রব্যের ব্যবহার বন্ধে সক্ষম হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘১৯৮৭ সালে গৃহীত মন্ট্রিল প্রটোকল ওজোনস্তর রক্ষা এবং জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় উল্লেখযোগ্য অবদান রাখছে। বাংলাদেশ মন্ট্রিল প্রটোকল বাস্তবায়নে সাফল্যের স্বাক্ষর রেখেছে। ‘আমরা ২০১০ সালের মধ্যেই সিএফসিসহ উল্লেখযোগ্য ওজোন ক্ষয়কারী দ্রব্যের ব্যবহার বন্ধে সক্ষম হয়েছি।’

প্রধানমন্ত্রী বিশ্ব ওজোন দিবস উপলক্ষে আজ এক বাণীতে এ কথা বলেন। আগামীকাল ১৬ সেপ্টেম্বর বিশ্ব ওজোন দিবস। বিশ্ব ওজোন দিবসের এবারের প্রতিপাদ্য ‘নিরাপদ সূর্যালোকে যতনে থাকিবে প্রাণ।’

তিনি বলেন, মন্ট্রিল প্রটোকলের আওতায় হাইড্রোফ্লোরোকার্বন (এইচএফসি) নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যে সম্প্রতি বিশ্ব নেতৃবৃন্দ একমত হয়েছেন। বিশ্ববাসী সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় মন্ট্রিল প্রটোকল যেভাবে সফলতার সঙ্গে ওজোনস্তর ক্ষয়কারী দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ করেছে, আগামীতেও এ প্রটোকল একইভাবে এইচএফসির ব্যবহার হ্রাসে ভূমিকা রাখবে।

প্রধানমন্ত্রী আশা করেন, এবারের বিশ্ব ওজোন দিবস পালন মন্ট্রিল প্রটোকল বাস্তবায়নে বাংলাদেশের সাফল্য তুলে ধরার পাশাপাশি ওজোনস্তর রক্ষা ও জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় জনসচেতনতা বৃদ্ধিতে কার্যকর ভূমিকা রাখবে। শিল্পক্ষেত্রে টেকসই পরিবেশবান্ধব ও বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী প্রযুক্তির ব্যবহার উৎসাহিত করবে।

আপনার মতামত লিখুন

জাতীয়,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ