সোমবার,১৫ই অক্টোবর, ২০১৮ ইং,৩০শে আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ৮:৩১
৩০ জনকে নিয়োগ দেবে রানার গ্রুপ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত এখন ০১৩… নম্বরেও গ্রামীণফোন ঘিওরে পাঁচ প্রতিষ্ঠানকে অর্থদণ্ড বিশ্ব সাদাছড়ি নিরাপত্তা দিবস পালিত গোপালগঞ্জে ইলিশ ধরতে গিয়ে দুই নৌকার সংঘর্ষ, জেলে নিহত বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে বর্ণিল সাজে সজ্জিত ৭৬টি পূজা মণ্ডপ

এবার জিম্বাবুয়ের কাছে পাত্তাই পেল না আফগানিস্তান

8 months ago , বিভাগ : খেলাধুলা,
মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: আমিরাতে আফগানিস্তানের কাছে ২-০ তে টি-টোয়েন্টি সিরিজ হারের পর প্রথম ওয়ানডেতেও অসহায় আত্মসমর্পণ জিম্বাবুয়ের। দ্বিতীয় ম্যাচেই দুর্দান্তভাবে ঘুরে দাঁড়িয়েছে তারা। ব্রেন্ডন টেলরের সেঞ্চুরিতে ১৫৪ রানের বড় ব্যবধানে জিতেছে গ্রায়েম ক্রেমারের দল। ৫ ম্যাচ সিরিজে এখন ১-১ সমতা।
মজার বিষয় হলো প্রথম ওয়ানডেতে আগে ব্যাট করতে নেমে ৫০ ওভারে ৫ উইকেটে ৩৩৩ রান করেছিল আফগানিস্তান। জবাবে জিম্বাবুয়ে অলআউট হয়েছিল ১৭৯ রানে। রবিবার দ্বিতীয় ম্যাচে আগে ব্যাট করতে নেমে জিম্বাবুয়েও করে ৫ উইকেটে ঠিক ৩৩৩ রান। এবার আফগানিস্তান অলআউট হয়েছে ১৭৯ রানে! দুই ম্যাচের ফলও একই, ১৫৪ রানের জয়!
শারজাহ ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে জিম্বাবুয়ের শুরুটা ভালো ছিল না। দলীয় ১০ রানে আউট হয়ে ফিরে যান সলোমন মিরে (৯)। দ্বিতীয় উইকেটে ৮৫ রানের জুটি গড়েন আরেক ওপেনার হ্যামিল্টন মাসাকাদজা ও টেলর। মাসাকাদজা ৫৪ বলে ৪৮ করে রান আউটে কাটা পড়লে ভাঙে এ জুটি।
চারে নামা ক্রেইগ আরভিন ১৪ রানের বেশি করতে পারেননি। চতুর্থ উইকেটে ১৩৫ রানের বড় জুটি গড়ে দলের স্কোর আড়াইশ পার করেন টেলর ও সিকান্দার রাজা। গত সেপ্টেম্বরে জিম্বাবুয়ে দলে ফেরার পর প্রথম সেঞ্চুরি তুলে নেন টেলর। ১১০ বলে পূর্ণ করেন ক্যারিয়ারের দশম ওয়ানডে সেঞ্চুরি। এবার জিম্বাবুয়ের কাছে পাত্তাই পেল না আফগানিস্তান
রশিদ খানের বলে বোল্ড হওয়ার আগে ১২১ বলে ৮টি ছক্কা ও ৫টি চারে ১২৫ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলেন টেলর। সেঞ্চুরির সুযোগ ছিল রাজার সামনেও। তবে ৪৯তম ওভারে সেঞ্চুরি থেকে ৮ রান দূরে থাকতে আউট হয়ে যান তিনি। ৭৪ বলে ৯টি চার ও ৪টি ছক্কায় ৯২ রানের ইনিংসটি সাজান রাজা। আর ম্যালকম ওয়ালারের ১৪ বলে অপরাজিত ২২ রানের সুবাদে ৩৩৩ রানের বড় পুঁজি পায় জিম্বাবুয়ে।
বড় লক্ষ্য তাড়ায় শুরু থেকেই ধুঁকেছে আফগানিস্তান। মাত্র ৩৬ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে তো একশর আগেই অলআউট হওয়ার শঙ্কায় পড়েছিল তারা। তবে তিনে নামা রহমত শার ৪৩ ও মোহাম্মদ নবীর ৩১ রানের সুবাদে সেই লজ্জা এড়ায় আফগানরা।
২৬তম ওভারে রহমত শাহ যখন ফিরলেন, আফগানিস্তানের স্কোর তখন ৯ উইকেটে ১১৫। শেষ উইকেটে মুজিব জাদরানের সঙ্গে দৌলতের জাদরানের ৬৪ রানের জুটি শুধু পরাজয়ের ব্যবধানই কমাতে পেরেছে। মুজিবকে বোল্ড করে আফগানদের ইনিংসের ইতি টানেন ক্রেমার। ২৯ বলে ৬টি ছক্কা ও ২টি চারে ৪৭ রানে অপরাজিত ছিলেন দৌলত।
৪১ রানে ৪ উইকেট নিয়ে জিম্বাবুয়ের সেরা বোলার ক্রেমার। টেন্ডাই চাতারা ২৪ রানে নেন ৩ উইকেট। এ ছাড়া ব্লেসিং মুজারাবানি ২টি ও ব্রায়েন ভিটোরি নেন একটি উইকেট।
আপনার মতামত লিখুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ