শুক্রবার-১৯শে এপ্রিল, ২০১৯ ইং-৬ই বৈশাখ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ১২:৫০
কাল শিক্ষক নিবন্ধনের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা ঢাকায় পৌঁছেছেন ফেরদৌস রমজানে পণ্যের দাম বাড়বে না: বাণিজ্যমন্ত্রী পার্বতীপুরে স্কুল ফিডিং কার্যক্রম পরির্শনে মন্ত্রী পরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব নারীর প্রতি সহিংসতা রোধে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অভিযোগ বক্স রাখার সুপারিশ তাইওয়ানে শক্তিশালী ভূমিকম্প নুসরাত হত্যাকারীদের শাস্তি দাবিতে গাইবান্ধায় মৌন প্রতিবাদ

একটি নয়, পৃথিবীর চাঁদের সংখ্যা তিন!

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক:  একটি নয়, পৃথিবীর চাঁদ আসলে তিনটি! তবে আমাদের চেনা চাঁদের মত নয় বাকি দু’টি। তারা তৈরি হয়েছে মহাজাগতিক ধুলো দিয়ে।

‘ন্যাশনাল জিওগ্রাফিক’-এ প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, হাঙ্গেরির জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা প্রমাণ করেছেন অন্য দুই চাঁদের অস্তিত্ব। মান্থলি নোটিশেস অব রয়্যাল অ্যাস্ট্রনমিক্যাল সোসাইটিতে প্রকাশিত প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, সেই রহস্যময় চাঁদের মধ্যে একটির ছবি তাঁরা তুলতে সক্ষম হয়েছেন। সেই সময় ওই চাঁদটির দূরত্ব পৃথিবী থেকে আড়াই লক্ষ মাইল ছিল।

তবে এই প্রথম নয়, আজ থেকে বহু বছর আগেই এমন দাবি শোনা গিয়েছিল। ১৯৬১ সালে পৃথিবীর আরও চাঁদ থাকার কথা ঘোষণা করেছিলেন পোল্যান্ডের এক জ্যোতির্বিজ্ঞানী কোর্দিলিউস্কি।

জানা যাচ্ছে, ওই দু’টি চাঁদ পৃথিবীকে নির্দিষ্ট সময় অন্তর প্রদক্ষিণ করে চলেছে। এই চাঁদ বা ঘন ধুলোর মেঘদের বলা হয় কোর্ডলিউয়েস্কি মেঘ। এই দুই চাঁদ আকারে খুব বড় হলেও যেহেতু ধূলিকণা দিয়ে তৈরি, তাই তাদের ওজন সামান্য।

সূর্যের আলো পড়লে তাদের পিঠ থেকে আলো প্রতিফলিত হয়। কিন্তু খুবই ক্ষীণ সেই প্রতিফলন। সেই কারণেই আকাশের বুকে তাদের দেখতে পান না পৃথিবীবাসীরা। তারার আলো, আকাশের ঔজ্জ্বল্য ইত্যাদির ভিড়ে হারিয়ে যায় সেই সামান্য আলো। তবে এখনও পর্যন্ত তাদের একটিকেই দেখতে পাওয়া গিয়েছে। অন্যটির দেখাও শিগগির মিলবে, এমনটাই আশা বিজ্ঞানীদের।সূত্র: বাংলাদেশপ্রতিদিন

আপনার মতামত লিখুন

তথ্য-প্রযুক্তি বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ