শুক্রবার,২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ইং,১০ই ফাল্গুন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ১০:২৩
চকবাজারে অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত ভবনগুলো ‘ব্যবহার অনুপযোগী’ দগ্ধদের চিকিৎসার সব খরচ বহন করবে সরকার: স্বাস্থ্যমন্ত্রী নিহতদের স্মরণে শুক্রবার মসজিদে বিশেষ মোনাজাত জলঢাকায় ভাষা শহীদ ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন” ছাতকের রাউলী স্কুলে মাতৃভাষা দিবস পালিত জলঢাকায় ভাষা শহীদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জানাতে সর্বস্তরের মানুষ ঢল দিনাজপুরে অবসর প্রাপ্ত সরকারি কর্মচারী কল্যাণ সমিতি’র শহীদের প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলী

উচ্চহারে করারোপ দাবী ‘তামাক চাষ এসডিজি অর্জনের অন্তরায়’

নাটোর প্রতিনিধি
তামাক চাষ কৃষি ও তামাকজাত পণ্য স্বাস্থ্যের জন্য প্রত্যক্ষ হুমকি। কৃষি জমিতে তামাক চাষ বাড়ছে দেশের উত্তরের জেলা গুলোতে। তামাক কোম্পানীগুলো ক্রমাগত চাষীদের বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে কৃষিজমিতে তামাক চাষে উৎসাহিত করে চলেছে। অতিরিক্ত লাভের আশায় চাষীরা কোম্পানীগুলোর ফাঁদে পড়ে তামাক চাষ করছে। ফলে কমছে জমির উর্বরতা। তামাকপণ্য প্রস্ততকারী কোম্পানীগুলো সরকারকে বিপুল পরিমাণে রাজস্ব দেয়ায় তামাক চাষে সরকার তেমন বাধানিষেধ আরোপ করছে না। অপ্রতিরোধ্য তামাক চাষ, উৎপাদন ও কম দামের কারণে তামাকজাত পণ্য দিনদিন সহজলভ্য হচ্ছে। ফলে দিনদিন বাড়ছে স্বাস্থঝুঁকি।
বৃহষ্পতিবার সকালে নাটোরে একটি রেস্তোরায় এন্টি ট্যোবাকো মিডিয়া এলায়েন্স আয়োজিত একটি মিডিয়া এডভোকেসিতে অংশগ্রহণকারীদের বক্তব্যে উঠে আসে এসব তথ্য।বক্তারা বলেন, জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সাথে আলোচনা করে সরকার তামাকের কর নির্ধারণ করে। তামাকচাষ পরোক্ষভাবে এসডিজি অর্জনের পথে অন্তরায়। এসডিজি অর্জনের অন্যতম শর্ত নাগরিকদের সুস্বাস্থ্য। তামাক চাষ নিরুৎসাহিত না হলে এসডিজি অর্জন বাধাগ্রস্ত হবে। স্তরভিত্তিক মূল্য প্রথা বাতিল করে খুচরা মূল্য প্রবর্তনের মাধ্যমে তামাকপণ্যের উপর উচ্চহারে করারোপই তামাকপণ্য ভোগে ভোক্তাদের নিরুৎসাহিত করতে পারে। পাশাপাশি এক্স ফ্যাক্টরী প্রথা বাতিল, ওজনের উপর সুনির্দিষ্ট করারোপ, স্ট্যান্ডার্ড প্যাকেজিং প্রথা প্রচলন, ধোঁয়াবিহীন তামাক উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানগুলোকে কর প্রশাসনের আওতায় আনার প্রস্তাবনা তুলে ধরা হয় সভায়।
এডভোকেসি সভায় প্রধান অতিথি প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য আবুল কালাম এমপি বলেন, কৃষি জমিতে তামাক চাষ আশঙ্কাজনকহারে বেড়েছে। আর স্থানীয় প্রেক্ষাপটে, স্ব স্ব প্রশাসন ও কৃষিবিভাগ কঠোর ভূমিকা নিতে পারছে না।
সুনির্দিষ্ট নীতিমালা না থাকার সুযোগে কোম্পানীগুলো কৃষিজমিতে তামাক চাষ করিয়ে নিচ্ছে। শুধু করবৃদ্ধিই নয়, উচিত তামাক চাষই বন্ধে উদ্যোগ গ্রহন করা।
সিনিয়র সাংবাদিক সেদরুল হুদা ডেভিডের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন নাটোর প্রেসকাবের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন, সিনিয়র সাংবাদিক নবীউর রহমান পিপলু, হালিম খান, জুলফিকার হায়দার জোসেফ, ফারাজী আহমদ রফিক বাবন, মুক্তার হোসেন, রনেন রায়, মামুনুর রশীদ, নাটোর প্রেসকাবের সিনিয়র সহ-সভাপতি মোস্তফা খোকন, সাহিত্য সম্পাদক নাইমুর রহমান, দপ্তর সম্পাদক আখলাক হোসেন লাল, এন্টি ট্যোবাকো মিডিয়া এলায়েন্সের কো-অর্ডিনেটর এহসানুল আমিন ইমন, এডভোকেসি অফিসার শরিফুল ইসলাম শামীম, সদস্য মোবারক হোসেন প্রমুখ।

আপনার মতামত লিখুন

রংপুর,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ