বুধবার,১৮ই অক্টোবর, ২০১৭ ইং,৩রা কার্তিক, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ২:২৫

আইসিটি শিক্ষকদের তথ্য চেয়েছে অধিদপ্তর দেশে মানসম্মত স্কুলের অভাব: প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী ৩৬তম বিসিএসের ফল প্রকাশ দুমকির টেকনিক্যাল মহিলা কলেজ স্টুডেন্ট কমিউনিটি পুলিশিং ফোরাম সভা অনুষ্ঠিত। পার্বতীপুরে চুরির অপবাদ সইতে না পেরে গৃহবধুর আত্মহত্যা রোহিঙ্গা ইস্যুতে মন্ত্রিসভায় প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ শলৈকুপায় চোরাই মোটরসাইকলে, পাঞ্ছ ম্যাশনি ও দশেীয় অস্ত্রসহ ৩ ছনিতাইকারী আটক

ঈদ আগামী ১৩ সেপ্টেম্বর

eid-moon_31374মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেক্স: আগামী ১৩ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার বাংলাদেশে পবিত্র ঈদ-উল আজহা উদযাপিত হবে। আজ শুক্রবার দেশের কোথাও পবিত্র জিলহজ মাসের চাঁদ দেখা না যাওয়ায় জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটি এ তারিখ নির্ধারণ করেছে। এর আগে আজ শুক্রবার সন্ধ্যায় জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে ইসলামিক ফাউন্ডেশন কার্যালয়ে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির বৈঠক থেকে এ তথ্য জানানো হয়েছে। এদিকে গতকাল বৃহস্পতিবার সৌদি আরবের আকাশে কোথাও জিলহজ মাসের চাঁদ দেখা না যায়নি। ফলে আগামী ১২ সেপ্টেম্বর সোমবার সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোতে ঈদ-উল আজহা উদযাপিত হবে।
অন্যদিকে স্বাভাবিকভাবে সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোর একদিন পর বাংলাদেশে উদযাপিত হয় পবিত্র ঈদ-উল ফিতর ও ঈদ-উল আজহা। সে হিসেব অনুযায়ী, আগামী ১৩ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার বাংলাদেশে উদযাপিত হওয়ার বিষয়টি একপ্রকার নিশ্চিতই ছিল। তবে আজ  শুক্রবার চাঁদ দেখার জন্য বসেছিল জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটি। হিজরি বর্ষপঞ্জি হিসেবে জিলহজ মাসের ১০ তারিখ থেকে শুরু করে ১২ তারিখ পর্যন্ত ৩ দিন ধরে ঈদ-উল-আজহা নির্ধারিত রয়েছে।
চাঁদ দেখা কমিটি জানায়, বাংলাদেশের আকাশে কোথাও ১৪৩৭ হিজরি সনের জিলহজ্ব মাসের চাঁদ দেখা যায়নি। ফলে আগামীকাল ৩ সেপ্টেম্বর শনিবার জিলক্বদ মাস ৩০ দিন পূর্ণ হবে এবং আগামী ৪ সেপ্টেম্বর রবিবার থেকে জিলহজ্ব মাস গণনা করা হবে। এই প্রেক্ষিতে আগামী ১৩ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার সারাদেশে পবিত্র ঈদুল আযহা উদযাপিত হবে। আজ শুক্রবার সন্ধ্যায় ইসলামিক ফাউন্ডেশন বায়তুল মুকাররম সভাকক্ষে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি বজলুল হক হারুন এমপি।
সভায় ধর্মসচিব মোঃ আব্দুল জলিল, প্রধান তথ্য অফিসার এ কে এম শামীম চৌধুরী, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের ভারপ্রাপ্ত মহাপরিচালক ড. মোঃ আলফাজ হোসেন, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের যুগ্মসচিব মোঃ সাইদুর রহমান, ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের যুগ্মসচিব মোঃ হাফিজ উদ্দিন, তথ্য মন্ত্রণালয়ের যুগ্মসচিব মোহাম্মদ নূরুল ইসলাম, বাংলাদেশ টেলিভিশনের পরিচালক (প্রশাসন) মোঃ সাখাওয়াত হোসেন, ওয়াকফ প্রশাসক (ভারপ্রাপ্ত) মুহাম্মদ নজরুল ইসলাম, ঢাকা আলিয়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষ প্রফেসর সিরাজ উদ্দিন আহমাদ, ঢাকা জেলার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ মজিবর রহমান, বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তরের পরিচালক মোঃ সামছুদ্দিন আহমেদ, বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের সিনিয়র পেশ ইমাম মাওলানা মুহাম্মদ মিজানুর রহমান, লালবাগ শাহী মসজিদের খতিব মাওলানা আবু রায়হান ও চকবাজার শাহী জামে মসজিদের খতীব মাওলানা শেখ নাঈম রেজওয়ান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
সভায় ১৪৩৭ হিজরি সনের পবিত্র জিলহজ্ব মাসের চাঁদ দেখা সম্পর্কে সকল জেলা প্রশাসন, ইসলামিক ফাউন্ডেশন-এর প্রধান কার্যালয়, বিভাগীয় ও জেলা কার্যালয়সমূহ, বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর এবং মহাকাশ গবেষণা ও দূর অনুধাবন প্রতিষ্ঠান হতে প্রাপ্ত তথ্য নিয়ে পর্যালোচনা করে দেখা যায় যে, সন্ধ্যায় বাংলাদেশের আকাশে কোথাও পবিত্র জিলহজ্ব মাসের চাঁদ দেখা যাওয়ার সংবাদ পাওয়া যায়নি।

আপনার মতামত লিখুন

ধর্ম বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ