বৃহস্পতিবার,২১শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ইং,৯ই ফাল্গুন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ৪:৩৭
বৌ সাজানো প্রতিযোগিতা শুরু করলেন কেকা ফেরদৌসী ১৮ নম্বরে শাকিব কলকাতার সেরাদের তালিকায় পলাশবাড়ী স্বেচ্ছায় রক্তদান সংগঠনের প্রথম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত শৈলকুপায় খাবার হোটেলসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে ভ্রাম্যমাণ আদালতের জরিমানা হাতীবান্ধায় স্টুডেন্ট কাউন্সিল অনুষ্ঠিত ৩১ মার্চ চতুর্থ ধাপের উপজেলা নির্বাচন হবে : ইসি সচিব ডোমার ভিত্তি বীজ আলু উৎপাদন খামারে বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা।

ইশা’র পোস্টারে ‘সয়লাব’ ঢাবি ক্যাম্পাস

3 weeks ago , বিভাগ : শিক্ষা,

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচনের তারিখ ঘোষণার পর থেকে নির্বাচনে কারা প্রার্থী হতে পারবেন সে আলোচনা ক্যাম্পাসের সর্বত্র। প্রতিমুহূর্তে ছাত্র সংগঠনের প্রতিনিধিদের পাশাপাশি সাধারণ শিক্ষার্থীরাও এ বিষয়ে সজাগ দৃষ্টি রাখছে।বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনও সতর্কতার সঙ্গে পদক্ষেপ নেওয়ার চেষ্টা করছে।তবে ক্যাম্পাসে হঠাৎ বেড়েছে ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলনের (ইশা) তৎপরতা। মধুর ক্যান্টিনসহ আশপাশের বিভিন্ন ভবনের দেয়ালে পোস্টার সাঁটিয়ে সয়লাব করেছে সংগঠনটি। তবে নির্বাচনের আগে ধর্মভিত্তিক সংগঠনটির তৎপরতায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে ক্যাম্পাসে থাকা সক্রিয় ছাত্র সংগঠনগুলো।

জানা গেছে, ডাকসু নির্বাচনে অংশ নিতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কাছে দাবি জানিয়ে আসছে ধর্মভিত্তিক এ সংগঠনটি। একই দাবিতে গত ২৩ জানুয়ারি ক্যাম্পাসে মিছিলও করে সংগঠনের কয়েকজন কর্মী।

মিছিলের প্রেক্ষিতে প্রগতিশীল ছাত্রজোট বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, ক্যাম্পাসে ধর্মভিত্তিক সংগঠনের প্রকাশ্য মিছিলের ঘটনায় তারা হতবাক। বিশেষ করে প্রশাসনের নীরবতা তাদের আরও ভাবিয়ে তুলেছে।

তবে প্রগতিশীল জোটের এ ধরনের আচরণকে প্রতিক্রিয়াশীল ও পশ্চাৎপদ উল্লেখ করে পাল্টা বিবৃতিও দেয় ইসলামী শাসনতন্ত্র।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ইসলাম একটি আদর্শিক জীবন ব্যবস্থা,যা থেকে রাজনীতিকে বিচ্ছিন্ন করে ভাবার কোনো সুযোগ নেই। ইসলাম তার আদর্শিক সৌন্দর্য ও ঐতিহ্য দিয়ে দেড় হাজার বছর বিশ্ব শাসন করেছে।

প্রগতিশীল জোটভুক্ত সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের ঢাবি শাখা সভাপতি সালমান সিদ্দিক বলেন,ডাকসু নির্বাচন ঘিরে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ধর্মভিত্তিক ছাত্র সংগঠনের এ ধরনের তৎপরতায় আমরা উদ্বেগ প্রকাশ করছি।

ক্যাম্পাসে ইশার তৎপরতায় প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করে ছাত্রলীগের ঢাবি শাখার সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাস বলেন, আমরা চাই না, ধর্মকে আশ্রয় করে রাজনীতি করে এমন ছাত্র সংগঠন ডাকসু নির্বাচনে অংশ নিক।

ঢাবি প্রক্টর অধ্যাপক একেএম গোলাম রাব্বানী বলেন, কোনো নিষিদ্ধ সংগঠন নির্বাচন করতে পারবে না। ঐতিহ্যগতভাবে বিশ্ববিদ্যালয় পরিবেশ পরিষদের যে ১৩টি সংগঠন আছে এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি কেন্দ্রিক গড়ে উঠা সাংস্কৃতিক সংগঠন ডাকসু নির্বাচনে অংশ নিতে পারবে।

প্রসঙ্গত, দীর্ঘ ২৮ বছর পর ডাকসু নির্বাচনের উদ্যোগ ঝিমিয়ে পড়া বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রাণের সঞ্চার করেছে।এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে আগামী ১১ মার্চ।সূত্র: পূর্বপশ্চিম

আপনার মতামত লিখুন

শিক্ষা বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ