শুক্রবার,১৮ই জানুয়ারি, ২০১৯ ইং,৫ই মাঘ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সময়: সকাল ১১:২৮
হজ যাত্রীদের বিমান ভাড়া কমলো ১০ হাজার ১৯১ টাকা শনিবারের জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন স্থগিত সুশাসন প্রতিষ্ঠায় দুর্নীতিমুক্ত প্রশাসন গড়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর বরিশালে মাদকাসক্ত ছেলেকে পুলিশে সোর্পদ করলেন মা সৈয়দপুরে ছাদ থেকে পড়ে কলেজ ছাত্রীর মৃত্যু ‘গ্রাজ্যুয়েটরা কেরানি হওয়ার স্বপ্ন দেখলে চলবে না’ ডোমারে গোমনাতী মহাবিদ্যালয়ে নবীণ বরণ অনুষ্ঠিত।

ইন্টারনেটে জিহাদি উপকরণ শনাক্ত ও মুছে দেয়ার নতুন সফটওয়্যার

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: অনলাইনে জিহাদসংক্রান্ত বিষয়বস্তু শনাক্ত এবং তাৎক্ষণিকভাবে মুছে দেয়ার এক নতুন ধরনের সফটওয়্যার তৈরিতে সাহায্য করেছে ব্রিটেন।

যুক্তরাজ্যের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আম্বার রাড বলেছেন, এ সফটওয়্যার টুলের মাধ্যমে ৯৪ শতাংশ আইএসের কর্মকাণ্ড শনাক্ত করা সম্ভব। সেগুলো মুছে দিতেই সফটওয়্যারটির সক্ষমতা ৯৯.৯৯৫ শতাংশ পর্যন্ত প্রমাণিত।

আর যেসব জিনিস মুছে দেয়ার ক্ষেত্রে সফটওয়্যারটি নিজে সিদ্ধান্ত নিতে পারবে না, সেটি মানব সিদ্ধান্তের জন্য ছেড়ে রাখবে।

লন্ডনের একটি ফার্ম নতুন এই বিশেষ টুলটি তৈরি করেছে।

এটি তৈরিতে ব্রিটিশ সরকার ৬ লাখ পাউন্ড অর্থ প্রদান করেছে।

ইন্টারনেটে ইসলামিক স্টেট গ্রুপ আইএসের নানারকম অডিও-ভিডিও উপকরণসহ বড় ডাটাবেস আছে, যা দিয়ে নানা রকম প্রচারণা চালিয়ে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে মানুষকে জিহাদে উদ্বুদ্ধ করা হয়।

মধ্যপ্রাচ্যে আইএস যোদ্ধাদের সঙ্গে যোগ দেয়ার উদ্দেশে পাশ্চাত্য দেশগুলোর বহু তরুণতরুণী তাদের বাড়িঘর ছেড়েছে।

পাশ্চাত্যের উন্নত বহু দেশেই সন্ত্রাস দমন বিভাগের তদন্তকারীরা বিষয়টি নিয়ে ক্রমেই উদ্বিগ্ন হয়ে পড়ছেন।

পশ্চিমা দেশের এসব অল্পবয়সী ছেলেমেয়েরা হঠাৎ তাদের বাড়িঘর থেকে উধাও হয়ে যায়। পরে ইরাক ও সিরিয়ায় ইসলামিক স্টেটের সঙ্গে সংশ্লিষ্টতা পাওয়া গেছে অনেকের। তাদের বড় অংশটিকে উদ্বুদ্ধ করা হয়েছে ইন্টারনেটের প্রচারণাও মাধ্যমে।

ব্রিটিশ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, হয়ত এই জায়গাটিতে কাজ করবে নতুন সফটওয়্যারটি।

তিনি বলেন, হয়ত একদিন সব প্রতিষ্ঠানের জন্য এই প্রযুক্তি ব্যবহার ভবিষ্যতে আইন দ্বারা বাধ্যতামূলক করা হতে পারে।

সন্ত্রাস-দমন সংক্রান্ত আলাপ আলোচনায় এখন যুক্তরাষ্ট্র সফরে রয়েছেন তিনি।

এ সময় মার্কিন প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলোর সঙ্গে নতুন সফটওয়্যার নিয়েও আলাপ করবেন।

তবে এ ধরনের প্রযুক্তি আগে মুক্ত ইন্টারনেটের পক্ষের মানুষেরা ব্যাপকভাবে সমালোচনা করেছেন।

আপনার মতামত লিখুন

তথ্য-প্রযুক্তি বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ