বুধবার,২১শে নভেম্বর, ২০১৮ ইং,৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সময়: বিকাল ৫:৪৭
বিএনপি থেকে আওয়ামী লীগে আসতে অনেকেই আগ্রহী লালমনিরহাটে ইসলামী আন্দোলনে ৩ প্রার্থীর মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ লালমনিরহাটে ঈদে মিলাদুন্নবী উপলে র‌্যালী ও দোয়া মাহফিল ১০ বছরের পরিবর্তন অব্যাহত রাখাই আওয়ামী লীগের লক্ষ্য শিখা অনির্বাণে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা পার্বতীপুরে ছাত্রলীগের কর্মসূচি পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) আজ

‘আমরা চাই বাংলাদেশীরাও ভারতে কাজের সুযোগ পাক’

2 months ago , বিভাগ : অর্থনীতি,

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: ভারতীয়রা বাংলাদেশে কাজ করে প্রায় ৪ বিলিয়ন ডলার ( প্রায় ৩২ হাজার কোটি টাকা) উপার্জন করেন। আমরা চাই বাংলাদেশীরাও ভারতে কাজের সুযোগ পাক।

কলকাতায় বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় অনাবাসী বাংলাদেশীদের সংগঠন এন আর বি এবং বাংলাদেশ উপ-হাইকমিশনের আয়োজিত এক আলোচনায় একথা বলেন এন আর বি-র চেয়ারপার্সন এম এস শেকিল চৌধুরী।

তিনি বলেন , ‘আমাদের স্বপ্ন ২০৩০ এর মধ্যে বাংলাদেশ পৃথিবীর প্রথম ৩০টি সর্ববৃহৎ অর্থনীতির মধ্যে চলে আসবে। আর আমরা সেই স্বপ্ন সফল করার কাজে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি’।

বাংলাদেশের অর্থনীতিকে আরও এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য এন আর বি সারা বিশ্বে কনফারেন্স করছে। কলকাতায় আজকের অনুষ্ঠানের পরে এন আর বি বিশ্বের অন্যান্য প্রান্তে যেমন আমেরিকা, ইংল্যান্ড এবং দুবাই তেও একইরকম অনুষ্ঠান করবে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বারবার ঘুরে আসে ভারত ও বাংলাদেশের দ্বিপাক্ষিক অর্থনৈতিক সম্পর্কের কথা।

ভারতীয় ব্যবসায়ীদের উদ্দেশে শেকিল চৌধরী বলেন, ‘আমরা আপনাদের বাংলাদেশে নিমন্ত্রণ করতে চাই’।

সেন্টার ফর পলিসি ডায়লগ-এর গবেষণা পরিচালক খ গোলাম মোয়াজ্জেম বলেন, ‘আমাদের দেশে আমরা চাই ভারতীয় ব্যবসায়ীরা আরও বেশি বিনিয়োগ করুক’।

নিজের বক্তব্যে উনি বাংলাদেশে বিদেশী বিনিয়োগের ক্ষেত্রে যে সহজ নিয়ম-কানুন আছে , তা বারবার তুলে ধরেন।

মোয়াজ্জেম বলেন, ‘আমাদের দেশে ভারতীয় কম্পানির জন্য তিনটি স্পেশাল ইকনোমিক জোন করা হয়েছে। তাই ভারতীয় কম্পানিগুলো চাইলে সহজেই বাংলাদেশে বিনিয়োগ করতে আসতে পারে’।

‘ভারত বিভিন্ন দেশে অনেক বিনিয়োগ করছে। আমরা আশা করবো এবার বাংলাদেশেও বিনিয়োগ হবে’, আশাবাদ প্রকাশ করেন মোয়াজ্জেম।

অর্থনীতি নিয়ে আলোচনায় বারবার উঠে আসে গত সাত বছরে কীভাবে ভারত এবং বাংলাদেশের মধ্যে বাণিজ্য ঘাটতি বেড়েছে।

মোয়াজ্জেম বলেন, ‘বাণিজ্য ঘাটতি ৩.৫ বিলিয়ন ডলার থেকে বেড়ে ৬.২ বিলিয়ন হয়েছে। ফলে আমরা চাই বাংলাদেশ থেকে যেন ভারতে রপ্তানি আরো বাড়ে। তাহলেই দুই দেশের মধ্যে বাণিজ্য ঘাটতি কমবে।’সূত্র: কালের কন্ঠ

আপনার মতামত লিখুন

অর্থনীতি বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ