বৃহস্পতিবার-১৮ই এপ্রিল, ২০১৯ ইং-৫ই বৈশাখ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ১০:২৯
ঢাকায় পৌঁছেছেন ফেরদৌস রমজানে পণ্যের দাম বাড়বে না: বাণিজ্যমন্ত্রী পার্বতীপুরে স্কুল ফিডিং কার্যক্রম পরির্শনে মন্ত্রী পরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব নারীর প্রতি সহিংসতা রোধে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অভিযোগ বক্স রাখার সুপারিশ তাইওয়ানে শক্তিশালী ভূমিকম্প নুসরাত হত্যাকারীদের শাস্তি দাবিতে গাইবান্ধায় মৌন প্রতিবাদ লালপুরে ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক

আজ শেষ হচ্ছে বাণিজ্যমেলা

2 months ago , বিভাগ : অর্থনীতি,

মুক্তিনিউজ২৪.কম ডেস্ক: আজ শেষ হচ্ছে মাসব্যাপী চলা ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলা। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের কারণে ১ জানুয়ারির পরিবর্তে গত ৯ জানুয়ারি শুরু হয় বাণিজ্যমেলা। মেলা ৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত চলার কথা থাকলেও ব্যবসায়ীদের অনুরোধে একদিন বাড়িয়ে ৯ ফেব্রুয়ারি শেষ হচ্ছে।

বেলা ১১টায় মেলা প্রাঙ্গণে আয়োজিত সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থাকবেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে। প্রতিবছর ১ জানুয়ারি মেলা শুরু হলেও এবার একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের কারণে বাণিজ্যমেলা এক সপ্তাহ পরে শুরু হয়েছিল। স্বাভাবিক নিয়মে প্রধানমন্ত্রী এ মেলার উদ্বোধন করে থাকেন, তবে নির্বাচনের কারণে এ বছর মেলা উদ্বোধন করেছেন রাষ্ট্রপতি। অন্যান্য বছরের মতো এবারও বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ও রফতানি উন্নয়ন ব্যুরো (ইপিবি) যৌথভাবে আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলার আয়োজন করেছে। এবারও রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের পশ্চিম পাশে এ মেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বাণিজ্যমেলাকে দৃষ্টিনন্দন করতে এবার মেলার প্রধান গেটটি মেট্রোরেলের আদলে তৈরি করা হয়েছে। ইপিবি সূত্রে জানা গেছে, মেলায় সবমিলিয়ে ৫৫০টি স্টল ছিল। এর মধ্যে সংরক্ষিত নারী স্টল ২০টি, প্রিমিয়ার প্যাভিলিয়ন ৬০টি, প্রিমিয়ার মিনি প্যাভিলিয়ন ৩৮টি, সাধারণ প্যাভিলিয়ন ১৮টি, সাধারণ মিনি প্যাভিলিয়ন ২৯টি, প্রিমিয়ার স্টল ৬৭টি, রেস্টুরেন্ট ৩টি, সংরক্ষিত প্যাভিলিয়ন ৯টি, সংরক্ষিত মিনি প্যাভিলিয়ন ৬টি, বিদেশি প্যাভিলিয়ন ২৬টি, সংরক্ষিত মিনি প্যাভিলিয়ন ৯টি, বিদেশি প্রিমিয়ার স্টল ১৩টি, সাধারণ স্টল ২০১টি ও ফুড স্টল ২২টি। বাংলাদেশ ছাড়াও আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় এ বছর অংশগ্রহণকারী বিভিন্ন দেশের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ছিল- ভারত, পাকিস্তান, চীন, ব্রিটেন, দক্ষিণ কোরিয়া, মালয়েশিয়া, ইরান, থাইল্যান্ড, যুক্তরাষ্ট্র, তুরস্ক, সিঙ্গাপুর, ভুটান, নেপাল, মরিশাস, ভিয়েতনাম, মালদ্বীপ, রাশিয়া, আমেরিকা, জার্মানি, সোয়াজিল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া ও হংকং। এবারের মেলায়  মা ও শিশু কেন্দ্র, শিশুপার্ক, ই-পার্ক ও পর্যাপ্ত এটিএম বুথ ছিল। বিভিন্ন সামগ্রীর মধ্যে ছিল– রেডিমেড গার্মেন্টস পণ্য, হোমটেক্স, ফেব্রিকস পণ্য, হস্তশিল্প, পাট ও পাটজাত পণ্য, গৃহস্থালী ও উপহারসামগ্রী, চামড়া ও চামড়াজাত পণ্য, তৈজসপত্র, সিরামিক, প্লাস্টিক পলিমার পণ্য, কসমেটিকস হারবাল ও প্রসাধনী সামগ্রী, খাদ্য ও খাদ্যজাত পণ্য, ইলেকট্রিক ও ইলেকট্রনিক্স সামগ্রী, ইমিটেশন ও জুয়েলারি, নির্মাণসামগ্রী ও ফার্নিচারসামগ্রী।

আপনার মতামত লিখুন

অর্থনীতি বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ