শুক্রবার,২০শে অক্টোবর, ২০১৭ ইং,৫ই কার্তিক, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ১১:৫৭

নারায়ণগঞ্জে জাহাজ কারখানায় সিলিন্ডার বিস্ফোরণ: দগ্ধ ৪ শ্রমিকলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে আ.ফ.ম রুহুল হক এমপি বেতনে বিশ্বের চতুর্থ হাথুরুসিংহে মিয়ানমারে পুলিশের সাথে সংঘর্ষ: নিহত ৫ শতাধিক হলে ‘দুলাভাই জিন্দাবাদ’ চট্টগ্রামে বাস-কভার্ড ভ্যান সংঘর্ষে নিহত ২ বড়াইগ্রাম ট্রাজেডির আজ তৃতীয় বর্ষপূর্তি হতাহতের পরিবারে আহাজারি থামেনি

আইরিনের সাহায্যে জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার

dc-nilphamariমো. জাকির হোসেন, নীলফামারী সংবাদদাতা: মেডিকেলের ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েও যখন বাবার আর্থিক দৈন্যতার কারণে মেডিকেলে ভর্তি হতে পারছিলোনা ঠিক তখনি মেধাবী আইরিনের পাশে দাঁড়ালো নীলফামারীর জেলা প্রশাসক জাকীর হোসেন, পুলিশ সুপার জাকির হোসেন খানসহ তার এক বন্ধু। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে (১৮ অক্টোবর) দুপুরে নীলফামারী পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে আইরিনের হাতে ৩৫ হাজার চেক তুলে দেন পুলিশ সুপার জাকির হোসেন খান। এর আগে জেলা প্রশাসকও চেক তুলে দেন আইরিনের হাতে। এসময় আইরিনের বাবা ইউনুছ আলীসহ পুলিশের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
আইরিনকে মেডিকেলে ভর্তিও জন্য পুলিশ সুপারের নেত্রকোনার এক আইনজীবী বন্ধুর দেয়া ২০ হাজার এবং তার ব্যাক্তিগত তহবিল থেকে ১৫ হাজারসহ মোট ৩৫ হাজার টাকা দেয়া হয়েছে বলে জানান পুলিশ সুপার। এছাড়াও ভবিষ্যতে আইরিনের লেখাপড়ার জন্য আরো কোন ধরনের সহযোগীতা লাগলে তা করবেন বলে জানান তিনি। এদিকে পুলিশ সুপারের এই মহতী উদ্দ্যোগের কারণে লেখাপড়ার পথ সুগম হওয়ায় তার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছে আইরিন।
উল্লেখ্য, এবারের মেডিকেল কলেজের ভর্তি পরীক্ষায় আইরিন বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেলে ভর্তিও সুযোগ পেলেও বাবার আর্থিক সামর্থ না থাকায় মেডিকেলে ভর্তি অনিশ্চিত হয়ে পড়েছিলো। সে জেলার সৈয়দপুর উপজেলার কামারপুকুর ইউনয়নের কিসামত কামারপুকুর গ্রামের দিনমজুর ইউনুছ আলীর মেয়ে।

আপনার মতামত লিখুন

রংপুর,সারাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ