সোমবার,২৭শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ইং,১৫ই ফাল্গুন, ১৪২৩ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ১০:২৬
জলঢাকায় প্রশাসনের মাসিক সমন্বয় সমাবেশ জলঢাকায় এক ব্যাতিক্রমধর্মী যুগান্তকারী পদক্ষেপ কেঁচো দিয়ে সার উৎপাদন জলঢাকায় ক্লিনিকের গলাকাটা ফি প্রতিবাদে ক্লিনিক ও সড়ক অবরোধ মঙ্গলবারের হরতালেও চলবে এসএসসি পরীক্ষা সৈয়দপুরে জাপা সংসদ সদস্যের বিরুদ্ধে এলাকায় মাইকিং মার্চের প্রথম সপ্তাহে ইন্দোনেশিয়া যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী লালমনিরহাটে এসএসসি পরীার্থীর আত্মহত্যা

‘অচেনা’ মজিদকে চিনল ইংলিশ বোলাররাও

abdul-majidমুক্তিনিউজ24.কম ডেস্ক: আবদুল মজিদের সেঞ্চুরিটা কি তবে লাঞ্চের পর হবে? লাঞ্চের পর বিসিবি একাদশের ওপেনার আর ব্যাটিংয়েই নামেননি। ‘অবসর’ নেওয়ার আগে তাঁর নামের পাশে যোগ হয়েছে ৮৬ বলে অপরাজিত ৯২ রানের ঝকমকে এক ইনিংস। পরে জানা গেল, পেশিতে টান পড়ায় আর ব্যাটিংয়ে নামেননি এই জাতীয় লিগে গত ম্যাচেও মাত্র বরিশালের বিপক্ষে মাত্র চার রানের জন্য সেঞ্চুরি না পাওয়া এই ওপেনার।

বাংলাদেশের ঘরোয়া ক্রিকেটের নিয়মিত পারফরমার। গত প্রিমিয়ার লিগে টানা সেঞ্চুরি করে আলোচনায় এসেছিলেন। দুই মৌসুম আগে জাতীয় লিগে ডাবল সেঞ্চুরিও করেছিলেন। কিন্তু সত্যি বলতে, সেভাবে কখনোই আলোটা পড়েনি তাঁর ওপর। বাংলাদেশের আপামর ক্রিকেট সমর্থকদের কাছে অনেকটাই অচেনা। সেই মজিদকে এবার চিনল ইংলিশ বোলাররাও। শুরু থেকেই এতটাই চড়াও ছিলেন।

তাঁর আক্রমণাত্মক ব্যাটিংয়ে এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে দুই দিনের প্রস্তুতি ম্যাচের প্রথম সেশনটা নিজেদের করে নিয়েছে বিসিবি একাদশ। প্রথম সেশনে বিসিবি তুলেছে ১ উইকেটে ১২৭ রান।

স্টুয়ার্ট ব্রডকে বাউন্ডারি দিয়ে শুরু, মজিদ যত এগিয়েছেন ততই দুর্ভোগ বেড়েছে ইংলিশ বোলারদের! ক্রিস ওকসের এক ওভারেই মেরেছেন পর পর তিন বাউন্ডারি। ৩৯ বলে করেছেন হাফ সেঞ্চুরি। এর মধ্যে ৩৬ রানই এসেছে বাউন্ডারি থেকে। মজিদ সবচেয়ে বেশি ভুগিয়েছেন দুই ইংলিশ পেসার ব্রড ও স্টোকসকে। তাঁর ১৪ বাউন্ডারির ১১টিই এই দুই পেসারের বলে। অবশ্য ইনিংসের একমাত্র ছক্কাটি এসেছে গ্যারেথ ব্যাটির ওভারে।

প্রস্তুতি ম্যাচ মানেই নিজেদের ঝালিয়ে নেওয়া। হতে পারে এটি প্রস্তুতি ম্যাচ, তবে প্রতিপক্ষ ইংল্যান্ড বলেই মজিদকে এই ইনিংসটা নিশ্চিত আত্মবিশ্বাসী করবে। ইংলিশ বোলারদের বিপক্ষে যেভাবে দাপট দেখিয়েছেন ২৫ বছর বয়সী ওপেনার, প্রথম টেস্টের আগে সেটি আত্মবিশ্বাসী করবে বাংলাদেশের অন্য ব্যাটসম্যানদেরও।

মজিদ অবশ্য অনেক দিন ধরেই খেলছেন ঘরোয়া ক্রিকেটে। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে তাঁর অভিষেক ২০১১ সালের মার্চে। ৪২টি প্রথম শ্রেণির ম্যাচে ৪২.৩৭ গড়ে ৬ সেঞ্চুরি ও ১৩ হাফ সেঞ্চুরিতে করেছেন ২৬২৭ রান। সর্বশেষ ঢাকা প্রিমিয়ার লিগেও উজ্জ্বল মজিদ, ১৬ ম্যাচে ৪৪.১২ গড়ে ৭০৬ রান করে ছিলেন শীর্ষ তিনে।

মজিদ উঠে যাওয়ার পর ব্যাটিংয়ে নামেন মমিনুল হক। যদিও বাংলাদেশ দলের এই টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান ছিলেন না ৮ অক্টোবর ঘোষিত প্রস্তুতি ম্যাচের খেলোয়াড় তালিকায়।

বাংলাদেশ টেস্ট দলে যেহেতু তিনি নিয়মিত মুখ, ইংল্যান্ডের বোলারদের পরখ করে নিতেই মমিনুলকে এই ম্যাচে খেলানো। অবশ্য প্রথম ইনিংসে তাঁর ব্যাটিং অনুশীলনটা ভালো হয়নি। মাত্র ১ রান করে বোল্ড হয়েছেন মঈন আলীর বলে। বিসিবি একাদশের রান ৪০ ওভারে ২ উইকেটে ১৬৬।

আপনার মতামত লিখুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ


%d bloggers like this: